বাংলা সাল

স্বাগতম

এই ব্লগ পেইজটি ভিজিট করার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। ভালো লাগলে আবার আসবেন। *** শিক্ষার কোন বয়স নাই, জানার কোন শেষ নাই। বিভিন্ন বাংলা সাইট পরিদর্শন করা নিত্য দিনের অভ্যাস হয়ে গেছে। আর যে সব পোষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ও দেখতে ভালো লাগে তাহার কপি সংগ্রহ করে এইখানে প্রকাশ করি মাত্র। *** বিঃদ্র ( যে সকল ব্লগ বা ওয়েব সাইট থেকে কোন অনুমতি ছাড়া কপি করে এইখানে পোষ্ট করি, কারো যদি কোনো অভিযোগ থাকে দয়া করে জানাবেন। সেটিকে মুছে দেব। ধন্যবাদ।। )

দিনের বেলায় বউয়ের আল্লাহ রাসুলের কথা। আর মাঝ রাতে কি করে??


স্ত্রী গভীর রাতে প্রতিদিন স্বামীর পাশ থেকে ঘুম থেকে উঠে আধা ঘন্টা এক ঘন্টার জন্য কোথায় যেন যায়! - কিন্তু একা সে কোথায় যায় এবং কেন যায়…? ! স্বামীতো চিন্তায় অস্থির। তাহলে বউ কি আমার কোন খারাপ সম্পর্কে জড়িয়ে গেল…? !
আবার ভাবছে বউতো ঠিকমতো নামাজও পড়ে! তাহলে কি সে লোক দেখানো নামাজ পড়ে,,,,,,? 
নাকি ভাল মানুষের আড়ালে অন্য কিছু করছে,,,,,?
:
নাহ্ অবশেষ স্বামী সিদ্ধান্ত নিলো' 

এক বেকার ইঞ্জিনিয়ার রোগের চিকিৎসা করল ডাক্তারকে!!!

এক ইঞ্জিনিয়ার কিছুতেই চাকরি পেলনা। তখন সে একটা ক্লিনিক খুলল আর
বাইরে লিখে দিল, “৩০০ টাকায় যে কোন রোগের চিকিৎসা
করান। চিকিৎসা না হলে এক হাজার টাকা ফেরৎ।“
.
এক ডাক্তার ভাবল এক হাজার টাকা
রোজকার করার একটা
দারুণ সুযোগ...
.
সে সেই ক্লিনিকে গেল আর বলল “আমার কোন জিনিষ খেতে গেলে তাতে কোন স্বাদ পাইনা।“
.
ইঞ্জিনিয়ার নিজের নার্সকে বলল, 
“২২ নাম্বার বক্স থেকে ওষুধ বার কর 
আর ৩ ফোটা খাইয়ে দাও।“
.
নার্স খাইয়ে দিল।
.
রুগী (ডাক্তার)–
“আরে, এটা তো পেট্রোল।“
.
ইঞ্জিনিয়ার–
“Congratulation ...
দেখলেন তো

সিংহের গতিবেগ ঘন্টায় প্রায় ৮০ কি.মি. আর হরিণের গতিবেগ ৮৫ কি.মি. এর উপরেও ওঠে, এরপরও সিংহ হরিণকে শিকার করে!!!

সিংহের গতিবেগ ঘন্টায় প্রায় ৮০ কিলোমিটার। তবে কিছু হরিণের গতিবেগ কখনও কখনও ৮৫ কিলোমিটারের উপরেও ওঠে। এরপরও সিংহ হরিণকে শিকার করে। কীভাবে করে জানেন? সিংহ যখন হরিণকে তাড়া করে তখন হরিণটি দৌড়ানোর সময় বারবার পিছে ফিরে তাকায়, সিংহটি আর কতটুকু দূরে আছে সেটা দেখার জন্য। এ কারণে হরিণের গতি কমে যায়। অন্যদিকে সিংহটি সামনে দৌড়ানো হরিণটিকে দেখে মনে করে, "এই তো, আরেকটু হলেই ওকে আমি ধরে ফেলবো"।

অস্থির মন

সবাই বলে বয়স বাড়ে, আমি বলি কমেরে---- সত্যি বলতেই এইটাই বাস্তব।গান শুনার অভ্যাস থাকলে সবাই বলে বয়স বাড়ে আমি বলি কমেরে লিংক ক্লিক করে গানটি শুনতে পারেন।  গান শুনতে শুনতে অস্তির মন লেখাটি পড়তে পারেন।  
প্রকৃতির এই লিলাভুমিতে মা/বাবার অবদানে আল্লাহ্‌র মেহেরবানিতে  মায়ের কোলে শিশু হয়ে জন্ম।শিশু বয়স থেকে যুবক হতে সময়  গেল ১৬/১৭ বছর। এই বয়স গুলী কিভাবে পার হয়েছে তাহার হিসাব নাই,,, পিছনের কথা বাদ দিয়ে নতুন এর হিসাব শুরু করতে করতে সময় পার করে দিলাম আর কয়েকটি বছর। জীবন কি তাহা বুঝতে পারলাম না এখনো। জীবনের এই যাত্রা শুরু করার স্বপ্ন দেখে শুরু হল প্রেম বিরহ এইভাবে চলে গেল আর কয়েকটি বছর এইভাবে বয়স হল ২৫/২৬ বছর-------------

কিছু ক্ষন তোলে মনে পাগলা হাওয়া কিছু চিন্তা বারবার করে আসা-যাওয়া। কিছু কল্পনা যখনই করে দে সবকিছু স্থির মন আমার তখন হয়ে উঠে অস্থির! (কে এম আবদুল্লাহ রিয়াদ এর লেখা কবিতা অস্থির মন 


টিক টিক করে ঘড়ির কাটা ঘোরতে ঘোরতে সময় চলে । ক্যালেন্ডার এর পাতায় দিন গোনতে গোনতে মাস, মাসের পরে মাস পুরীয়ে পুরাতন পাতা বাদ দিয়ে নতুন পাতার আগমনীতে পুণ্য

স্বামীর প্রতি স্ত্রীর ভালোবাসা


স্ত্রীর ভালোবাসায়, ঘরে ঢুকেই অবাক হয়ে গেল স্বামী । স্ত্রী ব্যাগ গোছাচ্ছে---- 


স্বামী: সে কী! কোথায় যাচ্ছ তুমি?
স্ত্রীঃ বাপের বাড়ি। 
স্বামীঃ কেন?
স্ত্রীঃ থাকব না আমি তোমার সঙ্গে।
স্বামীঃ আশ্চর্য! কী অন্যায় আমার?
স্ত্রীঃ আমার বাবা একটা ভুল মানুষের কাছে আমাকে বিয়ে দিয়েছেন।
স্বামীঃ বুঝলাম, কিন্তু আমার ভুলটা কি বলবে তো?

সাবধান! ''ব্লু হোয়েল" গেইমস খেলা থেকে দূরে থাকুন

সাবধান হও ''ব্লু হোয়েল" গেইমস খেলা থেকে দূরে থাকুন ।ব্লু হোয়েল গেম এর খবর। ব্লু হোয়েল গেম নিয়ে আতঙ্ক বেড়েই চলেছে দেশে। অনেকেই অসম্পূর্ণ, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে বিভিন্ন মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আতঙ্ক ও ভীতি সৃষ্টি করেছে। যার ফলে সুইসাইডাল চ‍্যালেঞ্জের এ গেমটি আরো প্রসার পাচ্ছে।

‘ব্লু হোয়েল গেম’ বাংলাদেশে কারো আত্মহত্যার কারণ হয়েছে কি না, তার তদন্ত করতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ইসলামিক সুন্দর একটি কাহিনী - পড়তে পড়তে চোখ দিয়ে পানি চলে আসল

ইসলামিক সুন্দর একটি কাহিনী - পড়তে পড়তে চোখ দিয়ে পানি চলে আসল। নিজে পড়ুন অন্যকে পড়তে উৎসাহ দিন। 

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের একজন সাহাবা, নাম থা’লাবা (Tha’laba, বাংলায় অনেক সময় সা’লাবা বলা হয়)। মাত্র ষোল বছর বয়স। রাসূল (সা) এর জন্য বার্তাবাহক হিসেবে এখানে সেখানে ছুটোছুটি করে বেড়াতেন তিনি। একদিন উনি মদীনার পথ ধরে চলছেন, এমন সময় একটা বাড়ির পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় তাঁর চোখ পড়ল দরজা খুলে থাকা এক ঘরের মধ্যে। ভিতরে গোসলখানায় একজন মহিলা গোসলরত ছিলেন, এবং বাতাসে সেখানের পর্দা উড়ছিল, তাই থা’লাবার চোখ ঐ মহিলার উপর যেয়ে পড়ল। সঙ্গে সঙ্গে উনি দৃষ্টি নামিয়ে নিলেন। কিন্তু থা’লাবার মন এক গভীর অপরাধবোধে ভরে গেল। প্রচন্ড দুঃখ তাকে আচ্ছাদন করল। তার নিজেকে মুনাফিক্বের মত লাগছিল। তিনি ভাবলেন, ‘কিভাবে আমি রাসূল (সা) এর সাহাবা হয়ে এতোটা অপ্রীতিকর কাজ করতে পারি?! মানুষের গোপনীয়তাকে নষ্ট করতে পারি? যেই আমি কিনা রাসূল (সা) এর বার্তা বাহক হিসেবে কাজ করি, কেমন করে এই ভীষণ আপত্তিজনক আচরণ তার পক্ষে সম্ভব?’ তাঁর মন আল্লাহর ভয়ে কাতর হয়ে গেল। তিনি ভাবলেন, ‘না জানি আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা আমার এমন আচরণের কথা রাসূল সা এর কাছে প্রকাশ করে দেয়!’ ভয়ে, রাসূল (সা) এর মুখোমুখি হওয়ার লজ্জায়, তিনি তৎক্ষণাৎ ঐ স্থান থেকে পালিয়ে গেলেন।

এভাবে অনেকদিন চলে গেল। রাসূল সাল্লাল্লাহু ওয়ালাইহি ওয়াসাল্লাম অন্যান্য সাহাবাদের কে থা’লাবার কথা জিজ্ঞেস করতেই থাকতেন। কিন্তু

বানীঃ জীবন

সব দুঃখের মূল এই দুনিয়ার প্রতি অত্যাধিক আকর্ষণ-- (হযরত আলী (রাঃ)

“ পাচটি ঘটনার পূর্বে পাচটি জিনিসকে মূল্যবান মনে করবেঃ তোমার বৃদ্ধ বয়সের পূর্বে তোমার যৌবনকে, ব্যাধির পূর্বে স্বাস্থ্যকে, দরিদ্রতার পূবে সচ্ছলতাকে, কর্মব্যস্ততার পূর্বে অবসরকে এবং মৃত্যুর পুর্বে জীবনকে ” (আল হাদিস) 

ক্ষমাশীলতার নীতি অবলম্বন করো, সত্য-সঠিক কাজের আদেশ দাও আর অজ্ঞদেরকে এড়িয়ে চলো -(আল কুরআন) 

বানীঃ চরিত্র

মানুষের চরিত্র সত্য ও সুন্দর হলে তার কথাবার্তাও নম্র ভদ্র হয় -- 
হযরত আলী (রাঃ)


“ চরিত্রহীনা নারী চরিত্রহীন পুরুষের জন্য, আর চরিত্রহীন পুরুষ চরিত্রহীনা নারীর জন্য। সৎ চরিত্রবতী নারী সৎ চরিত্রবান পুরুষের জন্য, আর সৎ চরিত্রবান পুরুষ সৎ চরিত্রবতী নারীর জন্য। ” (আল কুরআন)

শিক্ষনীয় পোষ্টঃ বড় চোর কে বা কারা? শিক্ষিত লোকেরা নাকি অশিক্ষিত লোকেরা?

শিক্ষনীয় উদাহরন সহ কিছু শিক্ষনীয় পোষ্ট।


ব্যাংক ডাকাতির সময় এক ডাকাত সবাইকে বলল, 'কেউ নড়াচড়া করবেন না, মাটিতে শুয়ে পড়ুন। ব্যাঙ্কের টাকা আপনার নয়, কিন্তু আপনার জীবন আপনার, যা বলছি তাই চুপচাপ মেনে নিন'। এইটাকে বলে 'মাইন্ড চেঞ্জিং কনসেপ্ট'। সাধারণ চিন্তাকে বিপরীত দিকে ঠেলে দেয়া। হঠাত এক মহিলা টেবিলের উপর শুয়ে পড়ল। ডাকাত সর্দার বলল, 'এই যে মেডাম এখানে শুটিং হচ্ছে না, ডাকাতি হচ্ছে। আমার কথামতো মাটিতে শুয়ে পড়ুন, নইলে গুলি করে দিব'। এটাকে বলে 'প্রফেশনালিজম'। যে জন্য ট্রেইন করা হয়েছে সেটাতে মনোযোগ দেয়া।
ডাকাতির পর বাসায় ফিরে শিক্ষানবিশ ডাকাত বলল, বস চলেন টাকাটা গুনে ফেলি। সর্দার বলল, 'আরে গাধা এখানে অনেক টাকা গুনতে সময় লাগবে। রাতের খবর দেখ তাহলেই বুঝতে পারবি কয় টাকা চুরি হয়েছে'। এইটাকে বলে 'অভিজ্ঞতা'। বর্তমানে তাই শিক্ষাগত যোগ্যতার চেয়ে

শিক্ষনীয় পোষ্টঃ কলা বনাম মেয়েদের দাম বাড়াতে গিয়ে কি করতেছে--

একটি শিক্ষনীয় পোষ্টঃ 
এক কলা বিক্রেতা ৫ টাকা পিস দরে কলা বিক্রি করছিল। প্রচুর বিক্রি হচ্ছিল। মানুষ নিচ্ছে আর ছাল ছাড়িয়ে খাচ্ছে। দেখে বিক্রেতা ভাবল যদি ছাল ছাড়িয়ে রাখি তাহলে ক্রেতাদের ছাড়াতে কষ্ট হবেনা এবং ছাড়িয়ে দেওয়ার কারনে দাম ও বেশি পাব। তখন সে কিছু কলা ছাড়িয়ে তার দাম ধার্য করল ৬ টাকা পিস।

এখন ক্রেতারা এসে দাম জিজ্ঞাসা করলে,

শরিকের কোনো বিক্রীত জমি বহিরাগত ক্রেতার কাছ থেক ক্রয়ের অধিকার (প্রিয়েমশন বা অগ্রক্রয়)

মৃত বাবা-মায়ের রেখে যাওয়া ওয়ারিশ সম্পত্তি যদি ওয়ারিশগন বহিরাগত কোন ক্রেতার কাছে বিক্রয় করে পেলে তাহা ওয়ারিশ সুত্রে উক্ত সম্পতি ফিরে পাওয়ার জন্য আইন অনুযায় কি করতে হয় আমরা অনেকি জানি না। না জানার কারণে অনেক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে বিনিময়য়ে কষ্ট পেতে হয়। বর্তমানে ভাইয়ে ভাইয়ে বা ভাইয়ে বোনে  ঝগড়া করে একে অন্য জনকে কষ্ট দেওয়ার জন্য ওয়ারিশ সম্পত্তি অন্য কোন বেক্তির কাছে বিক্রয় করে।তাহার ফলে সৃষ্টি হয় নানা রকম সমস্যা। আর এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য একটি উপায় আছে তাহা নিচে আলোচনা করা হল। 


প্রিয়েমশন বা অগ্রক্রয়ের বিধান:
প্রিয়েমশন (Pre-emption) অর্থ অগ্রক্রয়। অগ্রক্রয়াধিকারমূলক অধিকার হলো কোনো ক্রেতার কাছ থেকে আবার ক্রয়ের অধিকার। শরিকের কোনো বিক্রীত জমি বহিরাগত ক্রেতার কাছ থেকে অপর কোনো শরিক কর্তৃক আদালতের মাধ্যমে মূল্য ও নির্ধারিত ক্ষতিপূরণের টাকা জমা দিয়ে ক্রয় করাকে প্রিয়েমশন বলা হয়। বঙ্গীয় প্রজাস্বত্ব আইন-১৮৮৫, রাষ্ট্রীয় অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইন-১৯৫০-এর ৯৬ ধারা এবং ১৯৪৯ সালের অকৃষি প্রজাস্বত্ব আইনের ২৪ ধারায় এ সংজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। ১৮৮৫, ১৯৫০ এবং ১৯৪৯ সালের আইন তিনটির যথাক্রমে ২৬, ৯৬(১৭) ও ২৪(১০) ধারায় মুসলিম আইন দ্বারাও অগ্রক্রয়ের অধিকার শুধু নিশ্চিত করা হয়নি বরং অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। কাজেই বাংলাদেশে প্রিয়েমশন সুবিচার, ন্যায়পরায়ণতা ও সুবিবেচনার বিষয় নয়; বরং আইন দ্বারা সংরক্ষিত অধিকার।

উল্লিখিত ২৬, ৯৬ এবং ২৪ ধারার বিধানের সঙ্গে মুসলিম আইনের মৌলিক পার্থক্য হলো,

বিভিন্ন প্রকার দলিল সম্পর্কে জেনে নিন-

আমার মত অনেকেই দলিল কি, জানে না।জানতে হলে পড়তে হবে। আমি নিজেই জানতাম না দলিল কি। নিজ প্রয়োজনে ডিজিটাল যুগে গুগল মামার সাহায্যে অনলাইনে বিচরণ করে দলিল সম্পর্কে জানার শেষটা করতে থাকলাম। এবং সাথে-সাথে আমার ভালো লাগা প্রয়োজনীয় তথ্য ''সবার জন্য উন্মুক্ত'' এই ওয়েব পেইজের মাধ্যমে অন্য সাইটসমূহ থেকে সংগ্রহ করে শেয়ার করলাম। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। যাই হোক শুরু করলাম। 

“দলিল” কাকে বলে ?
যে কোন লিখিত বিবরণ আইনগত সাক্ষ্য হিসাবে গ্রহণযোগ্য তাকে দলিল বলা হয়। তবে রেজিস্ট্রেশন আইনের বিধান মোতাবেক জমি ক্রেতা এবং বিক্রেতা সম্পত্তি হস্তান্তর করার জন্য যে চুক্তিপত্র সম্পাদন ও রেজিস্ট্রি করেন সাধারন ভাবে তাকে দলিল বলে। 

নিচে বিভিন্ন রকম দলিল নিয়ে আলোচনা করা হলোঃ

মানসিক চাপের কারণগুলো যেনে নিন

অনেক সময় জীবনে চলে আসে কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত মুহূর্ত। হুট করে ঘটে যায় এমন ঘটনা, যা আমাদের কল্পনারও বাইরে। ঠিক সেই সময় পরিবর্তিত প্রতিকূল পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে গিয়ে মনোজগতে তৈরি হয় আলোড়ন। তৈরি হয় মানসিক চাপ, যাকে বলা হয় ‘স্ট্রেস’। এই মানসিক চাপের কারণে কেবল মনোজগতের পরিবর্তনই ঘটে না বরং উল্লেখযোগ্য বেশ কিছু শারীরিক লক্ষণও দেখা দেয়। মানসিক চাপের কারণে মস্তিষ্কে কিছু রাসায়নিক বস্তু বা নিউরোট্রান্সমিটারের ভারসাম্য নষ্ট হয়, অন্তঃক্ষরা বিভিন্ন গ্রন্থি থেকে নিঃসরিত হরমোনের ঘাটতি-বাড়তি হয় এবং এসবের প্রভাবে হৃদ্যন্ত্রের সংকোচন-প্রসারণের হার পরিবর্তিত হয়, নিশ্বাস-প্রশ্বাস হয় অস্বাভাবিক। তখন স্বাভাবিকভাবেই মনে হতে পারে যে শারীরিক কোনো সমস্যা হচ্ছে। কিন্তু মানসিক চাপের কারণেও যে এমনটা হতে পারে সেটাও মনে রাখা প্রয়োজন।


মানসিক চাপের কারণে ভুলে যাওয়া, সহজেই রেগে যাওয়া, নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারানো, দুশ্চিন্তা, বিচার-বুদ্ধি লোপ পাওয়া, মনোযোগ কমে যাওয়া, মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক নষ্ট হওয়া, মন খারাপ, উৎসাহ-উদ্দীপনা কমে যাওয়া ইত্যাদি মনোসামাজিক লক্ষণ দেখা দেয়। পাশাপাশি যেসব শারীরিক অসুস্থতা বা যেসব লক্ষণ সাধারণত দেখা দিতে পারে, সেগুলো হলো—
* মাথা ব্যথা করা, মাথা ভারী অনুভব করা বা

সফলতার চাবিকাঠি -১ ( সংগৃহীত)

নিজেকে গড়ুন, নিজের মত করে। তাহলে দেখবেন সফলতার বাণী, সফলতার চাবিকাঠি, সফলতার গল্প, সব নিজের কাছে। 
যুদ্ধ শুরু হয়ে গেলে তলোয়ারে ধার দেয়ার চান্স মিলবে না। মেধা কম-বেশি হতে পারে। বাপের টাকা কম-বেশি থাকতে পারে। কিন্তু অন্যদের সমান সময়ই তোমার হাতে থাকে। এক মিনিট কমও না। এক মিনিট বেশিও না। তবে তোমার ২৪ ঘন্টা কাটানোর স্টাইল, অন্যদের ২৪ ঘন্টা কাটানোর স্টাইলের চাইতে আলাদা হতে পারে। তাই এই বছরের ২৪ ঘন্টাগুলিই নির্ধারণ করে দিবে, পরের বছরের ২৪ ঘন্টাগুলি কেমন হবে। মনোযোগে ঘাটতি থাকতে পারে। তোমার জিপিএ হবে, তোমার ক্লোজ ফ্রেন্ডদের এভারেজ জিপিএ এর সমান। তোমার ক্রিয়েটিভিটি-স্মার্টনেস হবে, তাদের ক্রিয়েটিভিটি-স্মার্টনেস এর সমান।একদিনের মাস্তি বাদ দিয়ে, ক্রিয়েটিভ কারো সাথে অল্প একটু আড্ডা দিলেই দেখবে, অনেক কিছু শিখে ফেলছ। 

‘লোল’ তো লিখেন, জানেন এর অর্থ? জেনে নিন এমন আরও কিছু শব্দার্থ-

ফেসবুকে ‘লোল’ তো লিখেন, জানেন এর অর্থ? জেনে নিন এমন আরও কিছু শব্দার্থ

ফেসবুক বা হোয়াটসঅ্যাপে আমরা অনেকেই চ্যাটিং করি। চ্যাটিং করার সময় অনেক সংক্ষিপ্ত শব্দ পেয়ে থাকি। এই ধরুন, ‘লোল’ অথবা ‘ওএমজি’ টাইপ কিছু শব্দ। কিন্তু এসব শব্দের অর্থ কি? তা কি আদৌ আমরা জানি?

শিক্ষনিয় পোষ্ট, এক অপুর্ব সুন্দরী নারী

এক অপুর্ব সুন্দরী নারী 
এক কৃষক কে বলল আমি তোমাকে বিবাহ করিব। 
কৃষক তো নারীর চেহারা দেখে পাগল। কৃষক দেরি না করে নারী কে নিয়ে কাজী অফিস গিয়ে বলল তাড়াতাড়ি আমাদের বিবাহ দাও। কাজী নারীর চেহারা দেখে সে নিজেও

বিশ্বাস

একটি ছেলে তার প্রেমিকাকে অন্য একটি ছেলের হাত ধরে থাকতে দেখল। ছেলেটি তাকে ম্যাসেজ দিল... 


ছেলে : তুমি কোথায়?
মেয়ে : আমি বাড়িতে...!
ছেলে : ওও,ঠিক আছে।তোমার যমজ বোনকে দেখছি,জানো ও একদম তোমার মত দেখতে? হাহাহা! এবং সে আমার সামনে।মেয়েটি ছেলেটির দিকে তাকালো এবং লজ্জিত হল।
ছেলেটিকে মেয়েটিে ম্যাসেজ করল...
মেয়ে : এটা আমি,আমি খুব দুঃখিত,আমি শপথ করছি এমনটা আর কখনো হবে না।তোমার বিশ্বাস আমাকে গর্বিত করছে,এটা আমার প্রাপ্য এবং আমি শুধু তোমার।
Image may contain: 1 person, standing and outdoor
ছেলে : ইটস ওকে...কিন্তু

স্ত্রী স্বামীকে কি যাদু শিখালো জানতে বিস্তারিত পড়ুন

স্বামী তার স্ত্রীকে ইশারা করে বললো, পানি খাবো। স্ত্রী পানি নিয়ে এসে দেখেন, স্বামী আপন মনে সিগারেট খাচ্ছে, স্ত্রীর চোখে হঠাৎই জল চলে এলো স্বামী সিগারেট খাওয়ার মাঝখানেই পানিটা পান করলো, স্ত্রীকে বলল কান্না করছো কেন???


স্ত্রী বললো, তোমার কাছে আমার একটা জিনিস চাওয়ার আছে।

স্বামী মুচকি হেসে জবাব দিলো, তোমার একটা চাওয়া নয় হাজারো চাওয়া পূর্ণ করবো, বলো কি চাওয়া তোমার।

বলতে পারেন- আমরা এমন কেন!?

 বলতে পারেন- আমরা এমন কেন!? 


☛ রাতের অন্ধকারকে সবাই ভয় করি,কিন্তু কবরের অন্ধকার নিয়ে চিন্তাও করি না।
☛ চোখের সামনে কত লাশ কবরে পাঠাই, কিন্তু ভুলে যায় যে, নিজেরও একদিন যেতে হবে।
☛জাহান্নামের শাস্তির কথা সবাই জানি, কিন্তু এরপরও পাপের প্রতিযোগীতায় সবার শীর্ষে।
☛ আল্লাহকে রিজিকদাতা বলে বিশ্বাস করি, কিন্তু সন্তানাদি বেশী হলে, বলি-খাওয়াবে কে ?
☛ জান্নাতে সবাই যেতে চাই, কিন্তু সৎকাজে অনেক পিছিয়ে থাকি।
☛ মা জননীকে অনেক-অনেক ভালবাসি, কিন্তু বউ এর জন্য আনি ঢাকাই শাড়ী।
☛ মিথ্যা বলা মহাপাপ সবাই জানি, কিন্তু মোবাইলে প্রতিদিন কত রঙ্গের মিথ্যা বলি।
☛ রোগমুক্তির জন্য সকালে উঠে দৌড়াই, কিন্তু ফজরের নামাজের জন্য উঠতে পারি না।
☛ নিজের সন্তানদের কতই না আদর করি, কিন্তু বুড়ো মা-বাবাকে আমরা বৃদ্ধাশ্রমে পাঠাই।

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সসাল্লাম'এর হাদিস শরীফ থেকে ৪০টি গুরুত্বপূর্ণ উপদেশ

আসুন সবাই পড়ি
--------------------
রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সসাল্লাম'এর হাদিস শরীফ থেকে ৪০টি গুরুত্বপূর্ণ উপদেশ 


১। তিন সময়ে ঘুমানো থেকে বিরত থাকুনঃ 
ক ) ফজরের পর থেকে সূর্যোদয় পর্যন্ত,
খ)  আছর থেকে মাগরিব এবং 
গ)  মাগরিব থেকে  এশা পর্যন্ত।
২। দুর্গন্ধময় লোকের সাথে বসবেন না। যেমন যাদের মুখ থেকে সিগারেট কিংবা কাঁচা পেয়াজের গন্ধ আসে এমন লোকের সাথে।
৩। এমন লোকের কাছে ঘুমাবেন না যারা ঘুমানোর পূর্বে  মন্দ কথা বলে ।
৪।  বাম হাতে খাওয়া এবং  পান করা থেকে বিরত থাকুন।
৫।  দাঁতে আটকে থাকা খাবার বের করে খাওয়া পরিহার করুন।
৬। হাতে-পায়ের  আঙ্গুল ফোটানো পরিহার করুন।
৭।  জুতা পরিধানের পূর্বে দেখে নিন।
৮। নামাজে থাকা অবস্থায় আকাশের দিকে তাকাবেন না।

জেনে নিন- কি করে, গভীর রাতে স্ত্রী তার স্বামীর পায়ে ধরে ক্ষমা চাইল।


Image result for স্বামী স্ত্রী


স্বামী বাজারে গিয়ে স্ত্রীকে ফোন করছে, কিন্তু নাম্বার ওয়েটিং, স্বামী বাসায় এসে

দরজার ওপাশ থেকে স্ত্রীকে সালাম দিলেন, তারপর জিজ্ঞাসা করলেন কেমন
আছো?? স্ত্রী বলল ভাল, 
স্বামী বলল, তোমায় ফোন করেছিলাম, কিন্তু নাম্বার ওয়েটিং


ছিলো, কোথায় কথা বলছিলে, 



স্ত্রী বলল আমার বান্ধবীর সাথে,


স্বামী বলল, আমার আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা আদেশ করেছেন সত্য বলার
জন্য, যদিও তোমার জীবন বিপন্ন হয়ে যায়, আর বান্দা যখন মিথ্যা কথা বলে, তখন তাহার মিথ্যা কথার দুর্গন্ধে ফেরেশতা ১ মাইল দূরে চলে যায়। আর আল্লাহর রাসূল বলেছেন, আমার উম্মত কখনো মিথ্যাবাদী হতে পারেনা।

স্ত্রী কিছুক্ষণ চুপ থাকার পর বলল,

শিক্ষনিয় পোষ্ট, ফেরাউন কন্যার চুল আঁচড়ানোর কাজে নিয়োজিত একজন মহিলার ঘটনা ।


Image result for লাইলাহা

ফেরাউন কন্যার চুল আঁচড়ানোর কাজে নিয়োজিত ছিল একজন মহিলা। কোনো একদিন ফেরাউন কন্যার চুল আঁচড়ানোর সময় সহসা চিরুণি তার হাত থেকে মাটিতে পড়ে গেল। তা ওঠাতে গিয়ে আনমনে তার মুখ থেকে বের হয়ে পড়ল,বিসমিল্লাহ্।আল্লাহু আকবর।


এ কথায় ফেরাউনের কন্যার সন্দেহ হলে জিজ্ঞেস করল, ফেরাউন ছাড়াও কি তোমার কোনো আল্লাহ আছে নাকি? দাসী জবাবে বলল, "আমার আল্লাহ সেই যে ফেরাউনেরও আল্লাহ। শুধু ফেরাউন নয় সে আকাশ জমিনেরও আল্লাহ। তিনি একক তাঁর কোনো শরীক নেই।
একথা শুনে রাগে ফেরাউনের কন্যা অগ্নিশর্মা হয়ে পিতার কাছে গিয়ে বলল,

মূত্র (প্রশাব) থেকে ব্যাটারি!


Image result for ব্যাটারি তৈরি

যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক পৌঁছেছেন শৌচাগার পর্যন্ত। তাঁরা বলছেন, সাশ্রয়ী ও কার্যকর ব্যাটারি তৈরির গোপন উপাদান হতে পারে মূত্র।

বহনযোগ্য যেকোনো যন্ত্রের জন্য ব্যাটারি খুব গুরুত্বপূর্ণ অংশ। বৈদ্যুতিক চার্জ সংরক্ষণের ক্ষমতার ওপর নির্ভর করে ব্যাটারির ওজন ও মূল্য দুটোই বাড়তে পারে। প্রসিডিংস অব দ্য ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস জার্নালে প্রকাশিত গবেষণাপত্রে স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এই পদার্থবিজ্ঞানীরা কম খরচে বেশি ক্ষমতার এমন এক ব্যাটারি তৈরির কথা উল্লেখ করেছেন, যেটির মূল উপাদান হবে ইউরিয়া। পানি বাদ দিলে মানবদেহ নিঃসৃত মূত্রের মূল উপাদান এই ইউরিয়া। আর সেই ইউরিয়া দিয়েই তৈরি করা হবে ব্যাটারি।

জেনে নিন- পড়িবারের প্রথম সন্তানের বুদ্ধি বেশি হয় কেন?!

Image result for প্রথম সন্তানের বুদ্ধি বেশি হয়!

পড়িবারের প্রথম সন্তানের বুদ্ধি বেশি হয় কেন?! 

শৈশবে বাবা-মায়ের কাছ থেকে বাড়তি মনোযোগ ও মানসিক উদ্দীপনা পাওয়ার কারণে পরিবারের প্রথম সন্তানের বুদ্ধিমত্তা পরের সন্তানগুলোর চেয়ে বেশি হয়। নতুন এক গবেষণা প্রতিবেদনে এই দাবি করা হয়েছে।


বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ অনলাইন পত্রিকা দ্য ইনডিপেনডেন্ট-এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা দেখেছেন, পরিবারের প্রথম শিশুরা বুদ্ধিমত্তার পরীক্ষায় বেশি নম্বর পেয়েছে। সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি দলের সহযোগিতায় ওই গবেষণা করা হয়।

মধু কেন মিষ্টি?

Image may contain: foodমধু কেন মিষ্টি?
একদা রাসুলে পাক ( সা:) 

মৌমাছিকে প্রশ্ন করলেন, তুমি কি ভাবে 
মধু তৈরী কর? 
মৌমাছি বিনয়ের স্বরে বলল, ইয়া রাসুলাল্লাহ (সা:)আমি বাগানে গিয়ে হাজার রকমের ফুলের রস চুষে নেই। পেটের ভিতর একত্রিত ও মিশ্রিত করে বের করলে তা মধুতে পরিণত হয়।

রাসুলে করীম(সা:) বললেন, অনেক ফুলের রস তো টক ও তিক্ত। কিন্তু সব মধু মিষ্টি হয় কেন?

মৌমাছি উত্তরে বললো, 
"গুপত চুঁ খানীমে বর আহমদ দরুদ,
মী শুওয়াদ শীরীনে ওয়া তালখী রারে বৌদ।"

__অর্থ্যাৎ-

পান-সুপারি - চন্দ


এক কৃষক সুপারি গাছের গোড়ায়, পান গাছ লাগিয়েছে। পান গাছটা সুপারি গাছ বেয়ে উঠছে।  


একদিন এক পাখি এসে, পান পাতায় পায়খানা করে দিল! তো, অন্য গ্রামের এক লোক সেখানে গিয়ে এসব দেখে তো অবাক! একই গাছে পান- সুপারি!

এদিকে , পান পাতায় পাখির পায়খানা শূকিয়ে সাদা, লোকটি পাখির পায়খানা ভরা পাতা আর গাছের সুপারি পেড়ে মুখে ভরছে বলতেছে ---

"বাংলাদেশ সেনাবাহিনী" - তে 'সৈনিক' পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি-২০১৭

আগামী ২২ জানুয়ারি ২০১৭ হতে ৩০ জুন ২০১৭ তারিখ পর্যন্ত নির্ধারিত সেনানিবাসে সৈনিক পদে লোক ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। সেনাবাহিনীতে যোগদানে আগ্রহি পুরুষ ও মহিলা প্রার্থিদের আবেদনের জন্য বিস্তারিত তথ্যাবলী নিন্মরুপঃ 

তুমি নারী

তুমি নারী
তোমার অধিকার আছে…
তাই বলে কি অর্ধ উলংগ হয়ে,

রাস্তাঘাটে বেহায়ার মত চলবে?

তুমি নারী,
তোমার অধিকার আছে…
তাই বলে কি পুরুষের মত,
শার্ট প্যান্ট পরে ঘুরে বেড়াবে?
তুমি নারী,

তোমার অধিকার আছে…
তাই বলে কি স্বামীকে ঘরে রেখে,
শপিং করতে বেপর্দায় বাজারে যাবে?
তুমি নারী,

তোমার অধিকার আছে…
তাই বলে কি নিজের দেহটাকে 
বেগানা পুরুষদেরকে দেখাবে?
তুমি নারী,

তোমার অধিকার আছে…
তাই বলে কি পরপুরুষের হাত ধরে
পার্কে পার্কে ঘুরে বেড়াবে?
তুমি নারী,

নিচের লিঙ্ক গুলি থেক পছন্দ মত খুজে নিয়ে পড়ুন

অন্যান্য ভালো থাকুন গল্প ইসলাম তাজা খবর শিক্ষা কম্পিউটার জেনে রাখা ভালো স্বাস্থ্য হাঁসির গল্প অন লাইনে টাকা আয় করুন। জব(job) ফল এর পুষ্টিগুণ কবিতা জীবনের পাতা থেকে নেওয়া নিজের হাতে তৈয়ার করুন ব্লগ সাইট ১৮+ জমি জমার হিসাব (ভূমির পরিমাণ পদ্ধতি) ডাউনলোড করুন কথা এফিলিয়েট এর মাধ্যমে আয় করুন গেম(Games) নবীদের জীবনী পড়ালেখা ডিজাইন fast2earn তথ্য প্রযুক্তি Facebook এসএমএস ছন্দ শিক্ষনিয় পোষ্ট কৌতুক গবেষণা গান বাণী চিরন্তণী বিয়ে সাধারণ জ্ঞান Alertpay বা Payza Bangla Font অডিও ভিডিও এডিটিং শিখুন ঈদের নামাজের নিয়ম উপদেশ ঋতু ওয়েব কিছু প্রয়োজনীয় ওয়েব সাইট সমূহ ক্যাপচা টাইপ গুগল প্লাস ছেলে মেয়েদের সুন্দর নাম পাখির ছবি প্রাইজবন্ড ড্র এর ফলাফল ফেব্রুয়ারির ২৯ লিপ ইয়ার কেন হয়? বাংলা SMS বাংলাদেশের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় এর তালিকা বাছাই করা ছবি/মভিই ভুমিকম্প মা সফলতার চাবিকাঠি স্বর্ণের ওজন পরিমাপ

এই ব্লগ সাইটের পোষ্ট গুলি ফেসবুকে নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিন